Text size A A A
Color C C C C
পাতা

অফিস সম্পর্কিত

বাংলাদেশ একটি জনবহুল দেশ এবং এর প্রায় এক তৃতীয়াংশ জনগোষ্ঠী যুব। যুব সমাজ যে কোন দেশের মূল্যবান সম্পদ। জাতীয় উন্নয়ন ও অগ্রগতি যুব সমাজের সক্রিয় অংশগনের উপর অনেকাংশই নির্ভরশীল। কারণ তাদের মেধা সৃজনশীলতা,সাহস ও প্রতিভাকে কেন্দ্র করেই গড়ে উঠে একটি জাতির অর্থনৈতিক,সামাজিক ও সাংস্কৃতিক পরিমন্ডল। এ যুব সমাজকে দৰ মানব সম্পদ হিসেবে গড়ে তোলা সম্ভব হলে দেশের আর্থ সামাজিক অবস্থার উন্নয়ন Z¡ivwš^Z হবে। আমাদের এ যুব সমাজের অধিকাংশ দারিদ্র ও বেকারত্বের ¯^xKvi| বর্তমানে আর্থ-সামাজিক প্রেৰাপটে যুবদের বেকারত্ব নিরসনে আত্মকর্মসংস্থানের বিকল্প নেই। তাই সরকার সময় ও কর্মোপযোগী সুশিৰা ও উপযুক্ত প্রশিৰণের পাশাপাশি ঋণ দানের মাধ্যমে বেকার যুবদেরকে কর্মে নিয়োজিতকরণের জন্য আত্মকর্মসংস্থান কর্মসূচী গ্রহণ করেছে। দেশের অসংগঠিত ও কর্ম প্রত্যাশী বেকার যুব গোষ্ঠীকে সুসংগঠিত,  সুশৃংঙ্খল এবং উৎপাদনমূখী কর্মকান্ডে সমপৃক্ত করণের লৰ্যে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার ১৯৭৮ সালে যুব উন্নয়ন মন্ত্রণালয় সৃষ্টি করে যা পরবর্তীতে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় হিসেবে পূনঃনামকরণ করা হয়। মাঠ পর্যাযে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের কার্যক্রম বাসৱবায়নের জন্য ১৯৮১ সালে যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর সৃষ্টি করা হয়। বর্তমানে সারা দেশে ৬৪টি জেলা কার্যালয়,৪৭৫টি উপজেলা কার্যালয়,১০টি মেট্রোপলিটন ইউনিট থানা কার্যালয় ও  ১১১টি যুব প্রশিৰণ কেন্দ্রের মাধ্যমে যুব উন্নয়নের কার্যক্রম বাসৱবায়িত হচ্ছে। জুন ১৯৯৫ ইং সাল হতে ভোলাহাট উপজেলা কার্যালয়ে যুব কার্যক্রম শুরম্ন হয়।         

ছবি